খেলাধুলা

জাতীয় দলে কতটা কাজে লাগছেন মোস্তাফিজ?

আইপিএল খেলতে গিয়ে ইনজুরিটা বাধিয়েছিলেন। দেশে ফিরে আসার পর দলের সঙ্গে অনুশীলনও করেছিলেন; কিন্তু আফগানিস্তানের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলার জন্য দল যেদিন ভারতের উদ্দেশে রওয়ানা দেবে, তার আগেরদিন মোস্তাফিজের ইনজুরির বিষয়টা ‘মারাত্মক’ হিসেবে ধরা পড়ে। তখন বিসিবির ডাক্তার দেবাশীষ চৌধুরী জানিয়েছিলেন, অন্তত চার সপ্তাহ বিশ্রামে থাকতে হবে মোস্তাফিজকে।

এবারও বাংলাদেশের ক্রিকেট সমর্থকদের জন্য বড় দুঃসংবাদ। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম টেস্ট খেলতে পারছেন না কাটার মাস্টার মোস্তাফিজ। পায়ের ইনজুরির কারণে ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে প্রথম টেস্ট তিনি মিস করতে যাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন জাতীয় দলের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র। যদিও সেই সূত্রটি জানিয়েছে, দ্বিতীয় টেস্টের দলে ফেরার সমূহ সম্ভাবনা রয়েছে মোস্তাফিজের।

মোস্তাফিজের ইনজুরির মধ্যেই আফগানিস্তানের কাছে হেরে ভারত থেকে নাকানি-চুবানি খেয়ে এসেছে বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি দল। যদিও সে সব ভুলে বাংলাদেশ দলের সামনে এখন শুধুই ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর। ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে দুই টেস্ট, তিনটি করে ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি খেলার জন্য ২২ জুন দেশ ছাড়ার কথা রয়েছে বাংলাদেশ দলের। সবার আগে যেহেতু টেস্ট, সেহেতু টেস্ট দলই আগে ঘোষণা করার কথা।

মুস্তাফিজকে ছাড়াই আসন্ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্ট সিরিজের জন্য তাঁকে ছাড়াই দল ঘোষণা করা হতে পারে। আগামীকাল যেকোনো সময় ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজের জন্য দল ঘোষণা করার কথা রয়েছে।

আইপিএল খেলতে যেতে ইনজুরিতে পড়েন মুস্তাফিজ। ইনজুরির কারনে মুস্তাফিজ আফগান সিরিজে খেলার সুযোগ পাননি। অবশ্য প্রধান নির্বাচক নান্নু আশায় রয়েছেন দ্বিতীয় টেস্টে মুস্তাফিজকে পাওয়া যেতে পারে। এদিকে তাসকিনকেও এই সিরিজে দেখা যেতে নাও পারে। তিনি প্রিমিয়ার লিগের একটি ম্যাচে চোট পেয়ে অনেকদিন ধরে মাঠের বাইরে রয়েছেন।

টেস্ট দলের সম্ভাব্য একাদশ কেমন হতে পারে সেটা এখনো জানা সম্ভব হয়নি। গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে নতুন খেলোয়াড় হিসেবে সাদা পোষাকে নাজমুল হোসেন শান্তকে দেখা যেতে পারে। ঘরোয়া ক্রিকেটে দুর্দান্ত পারফর্ম করেছেন তিনি। এই জন্য নতুন মুখ হিসেবে টপ অর্ডারে তাঁকে দেখা যেতে পারে।

মুস্তাফিজ ও তাসকিন বাদে দলে জায়গা পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে রুবেল, রাব্বি, শফিউলের। আবু জায়েদ এবং আবু হায়দার রনির মধ্যে একজনকে দলে নেয়া হতে পারে।

টেস্ট দলে জায়গা নাও হতে পারে সাব্বির রহমানের। অনেকদিন ধরেই সব ফরম্যাটই তিনি অফফর্মে থাকায় তিনি দলে সুযোগ নাও পেতে পারেন। তাঁর জায়গায় দলে সুযোগ পেতে পারেন উইকেট কিপার নুরুল হাসান সোহান। লিটন, মুশফিক দলে থাকার পরও আরেকজন উইকেট কিপার নেয়াটা আবার বুদ্ধিমানের হবে না।