বিনোদন

‘চাক দে ইন্ডিয়া’র প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছিলেন সালমান

বলিউডের অন্যতম সফল সিনেমা ‘চাক দে ইন্ডিয়া’। এতে একজন হকি কোচ হিসেবে শাহরুখ খানের অভিনয় দারুণ প্রশংসিত হয়। গল্প নির্ভর সিনেমাটি শাহরুখকে একজন জাত অভিনেতা হিসেবে খ্যাতি এনে দিয়েছে।সমালোচকরা সিনেমাটির প্রশংসা করেন। পাশাপাশি ব্যবসায়িকভাবেও সফলতা লাভ করে। তবে সিনেমাটিতে শাহরুখ নয়, পরিচালকের পছন্দ ছিল অন্য একজন। তিনি হলেন সালমান খান। পরিচালক সিমিত আমিন সালমানের কাছেই সিনেমাটিতে অভিনয়ের প্রস্তাব দিয়েছিলেন।কিন্তু সালমান খান ‘চাক দে ইন্ডিয়া’ সিনেমাটি ফিরিয়ে দেন। এরপর শাহরুখের কাছে অভিনয়ের প্রস্তাব নিয়ে যান পরিচালক। কিন্তু তখন সিনেমাটি করতে রাজি ছিলেন না শাহরুখ। কারণ তখন তিনি অন্য আরেকটি সিনেমা ‘কাভি আলবিদা না ক্যাহনা’র কাজে ব্যস্ত ছিলেন।শেষ পর্যন্ত শাহরুখ সিনেমাটিতে অভিনয় করেন। ২০০৭ সালে মুক্তি পাবার পর ব্যাপক সাড়া ফেলে ‘চাক দে ইন্ডিয়া’। সিনেমাটি প্রযোজনা করেছে যশরাজ ফিল্মস। কাহিনি লিখেছেন জায়দীপ সাহনী।গল্পে দেখা যায়, ভারতীয় হকি দলের সাবেক অধিনায়ক কবীর খান যিনি ভারত বনাম পাকিস্তান মধ্যেকার একটি চূড়ান্ত ম্যাচে নিজের ভুলে হেরে যায়। এরপরে কবীর খেলাধুলা থেকে একঘরে হয়।তিনি এবং তার মাকে তাদের পৈতৃক বাড়িতে প্রতিবেশীদের দ্বারা অনেক তিরস্কার সইতে হয়। ৭ বছর পরে নিজের প্রচেষ্টায় এই অপবাদ থেকে মুক্ত হন কবীর খান।ভারতীয় মহিলাদের হকি দলের জন্য কোচ হিসেবে দলের নেতৃত্ব দেন। ষোল সদস্যের একটি দল নিয়ে নিজের চৌকস নেতৃত্বের ফলশ্রুতিতে ভারত হকি দল চ্যাম্পিয়ান হয়। খান ফিরে পায় তার খ্যাতি এবং ফিরে আসে তাদের বাড়িতে তার মায়ের সঙ্গে, সেসময় তারাই স্বাগত জানালো, যারা কয়েক বৎসর আগেই ​​তাদের ধিক্কার দিয়েছিলেন।সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া