জাতীয়

খুলনায় বিতর্কিত ৫৭ কর্মকর্তা ভোটগ্রহণ থেকে বাদ

খুলনা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে তিনটি কেন্দ্রে অনিয়মের দায়ে অভিযুক্ত ৫৭জন কর্মকর্তাকে বাদ দিয়ে জাতীয় নির্বাচনের জন্য বিভাগের দশ জেলায় ভোট গ্রহণ কর্মকর্তার তালিকা প্রস্তুত করা হয়েছে।

তালিকায় খুলনা বিভাগে ৪ হাজার ৮৩৪ জন প্রিজাইডিং অফিসার, ২৪ হাজার ২০২ জন সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার এবং ৪৮ হাজার ৪০৪ জন পোলিং অফিসারের নাম স্থান পেয়েছে। বৃহস্পতিবার এ তালিকা চুড়ান্ত করা হয়।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, কেসিসি নির্বাচনে ২৪ নং ওয়ার্ডের ইকবাল নগর মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়, ৩১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিল কার্যালয় ও একই ওয়ার্ডের লবনচরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে শতভাগ ভোট কাস্ট হওয়ায় রিটার্নিং অফিসার এসব কেন্দ্রের ফলাফল স্থগিত করেন। বিভিন্ন মহল থেকে সমালোচনা হওয়ায় এই কেন্দ্রের ভোট গ্রহণ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করতে রিটার্নিং অফিসার নির্বাচন কমিশনকে জানান। নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্তের আলোকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়, অর্থ মন্ত্রণালয়, খাদ্য মন্ত্রণালয় উল্লিখিত কেন্দ্র সমূহের ভোট কর্মকর্তাদের এক বছরের ইনক্রিমেন্ট বন্ধ, পদোন্নতি স্থগিত ও পরবর্তিতে ভোট কেন্দ্রের দায়িত্ব পালন থেকে বিরত রাখতে পরামর্শ দেয়। সে আলোকে জেলা নির্বাচন অফিস কেসিসি নির্বাচনে বিতর্কিত ৫৭ জন ভোট কর্মকর্তাকে বাদ দিয়ে ভোটগ্রহণ কর্মকর্তার তালিকা প্রস্তুত করেছে।

বাদপড়া কর্মকর্তারা হলেন- কেসিসি নির্বাচনে ২৪ নং ওয়ার্ড  ইকবাল নগর মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার সোনালী ব্যাংক সাউথ সেন্ট্রাল রোড শাখার প্রিন্সিপাল অফিসার মোঃ খলিলুর রহমান, সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার গভঃ ল্যাবরেটরি হাই স্কুলের সিনিয়র শিক্ষক মোঃ আব্দুল লতিফ সেখ, সিটি ব্যাংক খুলনা শাখার ইসিও মোঃ সাজ্জাদুল ইসলাম, খুলনা টেক্সটাইল মিলস্ হাইস্কুলের সহকারী শিক্ষক জোৎস্না খাতুন, সিটি ব্যাংক খুলনা শাখার সিও তানভীর আহমেদ,  দক্ষিণ শৈলমারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গীতা সরকার, খুউক  (কেডিএ) খানজাহান আলী সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক সন্দীপ কুমার ঢালী,  নৌবাহিনী স্কুল এন্ড কলেজের ব্যবসায় নীতি ও প্রয়োগ বিভাগের প্রভাষক মোঃ নূরুল ইসলাম, পোলিং অফিসার শ্রম কল্যাণ কেন্দ্রের ফার্মাসিস্ট এস এম মশিউর রহমান, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর সদর ইউনিটি থানার অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর মোঃ আশরাফুল আলম, খান বাহাদুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহঃ শিক্ষক এসএম রকিবুল হক, গোয়ালখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহঃ শিক্ষক সুমাইয়া সুমি, ক্রিসেন্ট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহঃ শিক্ষক বেগম রোকেয়া, প্রভাতী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের জুনিয়র শিক্ষক রেবেকা খাতুন, আমবাড়িয়া কেটলা মাঝিরগাতী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী গ্রন্থগারিক প্রদীপ বিশ্বাস, শহীদ তিতুমীর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহঃ শিক্ষক রাজিয়া সুলতানা, পূর্ব বয়রা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহঃ শিক্ষক ফেরদৌসী ইয়াসমিন, রায়েরমহল বিদ্যা নিকেতন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহঃ শিক্ষক হামিদা খাতুন, স্যাটেলাইট টাউন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহঃ শিক্ষক নাদিম আকতার, সুগন্ধি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অফিস সহকারী এসএম দাউদ আলি, খুলনা সিএসডি পৌর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহঃ শিক্ষক মুঃ হাবিবুর রহমান খান, শের-ই-বাংলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহঃ শিক্ষক রাধেশ্যাম শীল। ৩১ নং ওয়ার্ড লবনচরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার খুলনা পাবলিক কলেজের গণিত বিভাগের সহকারী অধ্যাপক  মোঃ রুকুনুজ্জামান, সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার অগ্রণী ব্যাংক কেডিএ নিউমার্কেট শাখার সিনিয়র অফিসার এ কে এম ফজলুল হক, জনতা ব্যাংক শেখপাড়া শাখার অফিসার মোছাঃ খোদেজা খাতুন, বয়রা ডাক বিভাগীয় মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহঃ শিক্ষক এস এম এনায়েত হোসেন, অগ্রণী ব্যাংক গোয়ালপাড়া শাখার এসও চন্দন রায়, লায়ন্স স্কুল এ্যান্ড কলেজের জীব বিজ্ঞানের প্রভাষক সমীরন মজুমদার, টি এন্ড টি আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহঃ প্রধান শিক্ষক সুভাস চন্দ্র বাছাড়, পোলিং অফিসার রামকৃষ্ণপুর পশ্চিমপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহঃ শিক্ষক কাদেরুন নেছা, ছন্দা মন্ডল ও চায়না রানী সরকার, বাদুরগাছা শিবপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহঃ শিক্ষক পংকজ কান্তি মন্ডল ও প্রফুল্ল কুমার মন্ডল, নবারুন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহঃ শিক্ষক রবীন্দ্রনাথ বিশ্বাস, টোলনা পাকুড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহঃ শিক্ষক কৃষ্ণা রানী কুন্ডু ও বিউটি,  কোমরাইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহঃ শিক্ষক কার্তিক চন্দ্র জোদ্দার ও অনিশ রঞ্জন বিশ্বাস, সিংগা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহঃ শিক্ষক তন্দ্রা মন্ডল, আটলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহঃ শিক্ষক মোঃ আবদুস ছাত্তার মোড়ল। ৩১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিল কার্যালয় কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার বাংলাদেশ ব্যাংক খুলনার উপপরিচালক মোঃ আলী হোসেন, সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার জনতা ব্যাংক খালিশপুর শাখার ক্যাশ অফিসার টিপু সুলতান চৌধুরী, সোনালী ব্যাংক খালিশপুর শাখার ক্যাশ অফিসার মোঃ আসাদুজ্জামান সরদার, বয়রা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহঃ প্রধান শিক্ষক দিলীপ কুমার পাল, জিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহঃ প্রধান শিক্ষক আফরোজা রহমান, জনতা ব্যাংক নূর নগর শাখার এসও সাগর কুমার মন্ডল, পোলিং অফিসার বাদুরগাছা শিবপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহঃ শিক্ষক ভবেন্দ্র নাথ বাইন, পবিত্র কুমার সরকার ও উত্তম মন্ডল, নবারুন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহঃ শিক্ষক ফয়জুন নাহার, পার্বতী সরকার ও অনুরাধা বিশ্বাস, কুলতলা শীতলাবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহঃ শিক্ষক উজ্জল মন্ডল ও সুব্রত সরদার, আটলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহঃ শিক্ষক মোসা মেহেরুন্নেছা, কোমরাইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহঃ শিক্ষক খালেদা খাতুন।

সাতক্ষীরা জেলা নির্বাচন অফিসার নাজমুল কবির জানান, জেলায় প্রিজাইডিং অফিসার, সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার ও পোলিং অফিসারদের  তালিকা চুড়ান্ত করা হয়েছে। তালিকায় দল নিরপেক্ষ ব্যক্তিদের প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে।

অন্য একটি সূত্র জানায়, খুলনা বিভাগে জাতীয় নির্বাচনের জন্য ৪ হাজার ৮৩৪ টি কেন্দ্রের নাম চুড়ান্ত করা হয়েছে।