শিক্ষাঙ্গন

ক্লাসে ‘প্রক্সি’ দেওয়ায় জাবি ছাত্রী ফেল!

জাবি প্রতিনিধি: রাজু: জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) গণিত বিভাগের এক ছাত্রী ক্লাসে ‘প্রক্সি’ দেওয়ার অভিযোগে ওই ছাত্রীকে ফাইনাল পরীক্ষায় ফেল করানোর অভিযোগ উঠেছে কোর্স শিক্ষকের বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত শিক্ষকের নাম অধ্যাপক জেসমীন আখতার। বিভাগের শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, গণিত বিভাগের ৪৩ তম ব্যাচের ওই ছাত্রী ৪০৯ নম্বর কোর্সের (ফ্লুইড মেকানিকস) ক্লাসে আরেকজনের উপস্থিতি নিজে দেওয়ায় (প্রক্সি) ওই কোর্সের শিক্ষক তাকে বকাবকি করেন। এ নিয়ে ওই শিক্ষার্থীসহ তার সহপাঠীরা বিভিন্ন সময় কোর্স শিক্ষক অধ্যাপক জেসমীন আখতারের কাছে ক্ষমা চান। কিন্তু এতেও কাজ হয়নি। উপরন্তু ওই শিক্ষকের প্রতিটি ক্লাস ও টিউটোরিয়াল পরীক্ষায়
অংশগ্রহণ নেওয়ার পরেও তাকে কোনো নম্বর দেননি। এতে ক্লাস ও উপস্থিতির ৩০ নম্বরের মধ্যে কোন নম্বর না থাকায় ফাইনাল পরীক্ষায় ফেল করেন ভূক্তভোগী ছাত্রী। এর আগে প্রায় প্রতিটি ব্যাচে সামান্য বিষয় নিয়ে শিক্ষার্থীদের নম্বর না দেওয়া ও তাদের সাথে দূর্ব্যবহার করার অভিযোগ রয়েছে অধ্যপক জেসমীনের বিরুদ্ধে। এ বিষয়ে ভূক্তভোগী শিক্ষার্থী বলেন, সব ক্লাস ও পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার পরেও একটা ছোট ভুলের কারনে আমাকে ফেল করানো হল। এতে আমার শিক্ষাজীবন বিপর্যের মধ্যে পড়েছে। এ বিষয়ে ওই কোর্সের শিক্ষক অধ্যাপক জেসমীন আখতার বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, ওই ছাত্রী আমার সাথে বেয়াদবি করেছে এবং প্রক্সি দিয়েছে। তাই তাকে কোন মার্ক দেইনি। এটা আমাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়। এসব নিয়ে কথা বলব না।