খেলাধুলা

এমন হার অনেক হতাশার

বাংলাদেশের ইনিংসে যখন সব ব্যাটসম্যানরা উইকেট হারানোর মিছিলে নামে তখন দুই সিনিয়র ব্যাটসম্যান মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ এবং মুশফিকুর রহিম দলের হাল ধরেন। তাদের দুইজনের ব্যাটে জয়ের আশাও জাগে। কিন্তু তা আর হলো না। এক রশিদ খানের ওভারেই শেষ বাংলাদেশ। এত লড়াই করেও এক রানের পরাজয়। এই পরাজয়টাকে অনেক হতাশার বলেই মনে করেন উইকেট কিপার ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম।

ম্যাচের শেষ ৩ ওভারে যখন বাংলাদেশের ৩৩ রান লাগে, তখন রশিদ খান বল হাতে এসে দেন মাত্র ৩ রান। সেই ওভার টাই বাংলাদেশকে ম্যাচ থেকে অনেকটা ছিটকে দিয়েছে।

কিন্তু পরের ওভারেই আবার আশা জাগান মুশফিক। ১৯তম ওভারে বোলিং আক্রমণে পেসার করিম জানাত। এই ওভারের প্রথম পাঁচ বলের পাঁচটিতে চার মারলেন মুশফিক। তখন বাংলাদেশের জয়ের সম্ভাবনা আরো বেড়ে গেল। সেই সম্ভাবনাকে শেষ ওভারে ধসিয়ে দিলেন আফগান স্পিনার রশিদ খান। একটি অভিজ্ঞ দল হিসেবে একটিও টেস্ট না খেলা দলের কাছে সিরিজ হারের লজ্জা একটু বেশিই হতাশার মনে হয়।

ম্যাচ শেষে মুশফিক বলেন,‘১ রানে হারাটা অবশ্যই অনেক হতাশার। সিরিজ যদিও আগেই হেরে গিয়েছিলাম, একটি জয়টা আমাদের দলকে স্বস্তি দিতে পারত। দূর্ভাগ্যজনক ভাবে সেটি হয়নি। পরেরবার যদি সুযোগ পেলে, আশা করি কাজে লাগাব।’

রশিদ খান, মুজিব উর রহমানদের মতো বোলারদের বিপক্ষে জয়টা অনেক কঠিনই ছিল বাংলাদেশের পক্ষে। কিন্তু তবুও সিরিজ জয়ের পরে আফগানদের অভিনন্দন জানাতে ভুল করেননি মুশফিক। তিনি বলেন,‘আফগানিস্তানকে অভিনন্দন, তারা ভালো খেলেছে। রশিদ-নবি-মুজিবের মতো তিনজন স্পিনার থাকলে প্রতিপক্ষের কাজ কঠিন। ওরা দারুণ ভাবে বোলারদের কাজে লাগিয়েছে।’