আজকের সেরা সংবাদ

এবার হেঁটে অফিসে গেলেন পলক

হেলমেট ছাড়া মোটরসাইকেলে চড়ে সমালোচিত হওয়ার পর আজ বৃহস্পতিবার পায়ে হেঁটে অফিসে গিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ (পলক)। যানজটের কারণে অফিসে যেতে দেরি হয়ে যাচ্ছিল বলে তিনি কিছু পথ পায়ে হেঁটে যান।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে জুনাইদ আহমদ পলকের পায়ে হেঁটে অফিসে যাওয়ার একটি ভিডিও ছড়িয়েছে। পলকের ভেরিফাইড ফেসবুক পেজ থেকেও এই ভিডিও শেয়ার করা হয়। পলকের পেজ থেকে নাজমুল হুদা বকুল নামের একটি ফেজবুক আইডি থেকে ভিডিওসহ দেওয়া স্ট্যাটাস শেয়ার করা হয়। পলকের পেজের মন্তব্য অপশনে এই ভিডিও নিয়ে ইতিবাচক, নেতিবাচক দুই ধরনের প্রতিক্রিয়াই দেখা গেছে।

জানতে চাইলে জুনাইদ আহমদ বলেন, বৃহস্পতিবার ১০টার সময় আগারগাঁওয়ে আইসিটি ভবনে একটি বৈঠক ছিল। ওই এলাকায় মেট্রো রেলের কাজ চলছে, একটি রাস্তা বন্ধ ছিল, ফলে যানজট ছিল। তিনি আইডিবি ভবনের সামনে গাড়ি থেকে নেমে হেঁটে তাঁর কার্যালয়ে যান। তিনি বলেন, সামান্য রাস্তা, ওইটুকু হেঁটে যেতে ৫ থেকে ১০ মিনিট লাগে। গাড়িতে বসে থাকলে দেরি হয়ে যেতো। এতে বৈঠকের জন্য অপেক্ষারত অন্যরা হয়তো বিরক্ত হতেন। এ কারণে তিনি হেঁটেই চলে যান। এটাকে তিনি ‘সিম্পল’ ব্যাপার হিসেবে আখ্যায়িত করেন।

এর আগে নতুন মেয়াদে প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেওয়ার পরদিন গত মঙ্গলবার যানজটে আটকা পড়ায় সময়মতো অফিসে পৌঁছাতে হেলমেট ছাড়া মোটরসাইকেলে চড়ে সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন পলক। যানজটের কারণে অফিসে যেতে সময় বাঁচানোর জন্য তিনি মাঝপথে অন্য একজনের মোটরসাইকেলে উঠেছিলেন। তবে মোটরসাইকেল চালকের মাথায় হেলমেট থাকলেও পলকের মাথায় হেলমেট ছিল না। এই ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার পর আইন না মানায় নানামুখী সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি।

এ বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, তিনি এ বিষয়ে প্রতিমন্ত্রীকে জিজ্ঞাসা করলে, প্রতিমন্ত্রী বলেছেন, এটা ভুল হয়েছে। এ রকম আর হবে না।