আজকের সেরা সংবাদ

এবার হঠাৎ করে সুর পাল্টালেন ড. কামাল

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে গণফোরামের নির্বাচিত সুলতান মনসুর দলের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে শপথ নেয়ায় দল থেকে তাকে বহিষ্কার করা হয়। দলটির নির্বাচিত অন্য সদস্য মোকাব্বির খান শপথ নেওয়ার কথা থাকলেও পরে দলের সিদ্ধান্ত মোতাকের তিনি শপথ নেননি।

এদিকে মোকাব্বিরে শপথ না নেয়ার সিদ্ধান্ত নিলেও হঠাৎ করে মত পাল্টালেন গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে গণফোরামের নির্বাচিত সাংসদ মোকাব্বির খান আগামীতে শপথ নিতেও পারেন, নাও নিতে পারেন বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।
ড. কামাল হোসেন বলেন, মোকাব্বির খান শপথ নেবেন কি-না, সেটা দলীয়ভাবে আলোচনা সাপেক্ষে সিদ্ধান্ত হবে। সবাই মিলে শপথের বিষয়ে ইতিবাচক সিদ্ধান্ত নিলে ভালো। তবে আমরা এখনো শপথ না নেওয়ার পক্ষে। শনিবার (৯ মার্চ) বিকেলে গণফোরামের সভাপতি পরিষদের সভা শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনিএ কথা বলেন।

এ নির্বাচনে গণতন্ত্রের কবর রচিত হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, ৩০ ডিসেম্বরের কলঙ্কিত তথাকথিত সংসদ নির্বাচন গণতন্ত্রের কবর রচনা করেছে। গণতন্ত্র পুনঃরুদ্ধার, আইনের শাসন কায়েম এবং জনগণের ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য জাতীয় ঐক্যকে সুদৃঢ় ও জোরদার করতে হবে।

গণফোরম সভাপতি বলেন, ‘জনগণ বর্তমান অবস্থার পরিবর্তনের জন্য সচেষ্ট। এই লক্ষে আমাদের কাজ করে যেতে হবে।’ সভায় অন্যান্যদের আরও বক্তব্য রাখেন- মোস্তফা মোহসীন মন্টু, মফিজুল ইসলাম খান কামাল, অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, অ্যাডভোকেট এস এম আলতাফ হোসেন, মোকাব্বির খান।