অর্থনীতি

এক সপ্তাহ পেছাল বাণিজ্য মেলা

আগামী ৩০ ডিসেম্বর জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এ কারণে ২৪তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা-২০১৯ এক সপ্তাহ পিছিয়েছে।

বুধবার রাইজিংবিডিকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর মহাপরিচালক রমজান আলী।

রমজান আলী বলেন, প্রতি বছর ১ জানুয়ারি থেকে মেলা শুরু হলেও এবার নির্বাচন উপলক্ষে এর সময় পরিবর্তন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমরা। আগামী (ডিসেম্বর) মাসে একটি মিটিং হবে। এরপর আমরা মেলা শুরু হবার সঠিক তারিখ জানাতে পারব। তবে জানুয়ারির ১০ তারিখের মধ্যেই মেলা উদ্বোধন হবে আশা করছি। এর বেশি দেরি করা হবে না। কারণ  ফেব্রুয়ারি মাসে বই মেলাও রয়েছে।

এ মাসের মধ্যে স্টল বরাদ্দ শেষ হবে। এ পর্যন্ত ৪৩টি বিদেশি প্রতিষ্ঠান আবেদন করেছে। এর মধ্যে নতুন বেশ কয়েকটি দেশ রয়েছে। গেলবারের থেকে এবার বিদেশিদের আগ্রহ অনেক বেশি। আগামী ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে সব প্রস্তুতি শেষ হবে বলেও জানান তিনি।

ইপিবি সূত্রে জানা গেছে, এবারের মেলায় দেশি-বিদেশি প্রতিষ্ঠানের স্টল ও প্যাভিলিয়ন মিলিয়ে প্রায় সাড়ে পাঁচশ প্রতিষ্ঠান অংশ নেওয়ার কথা রয়েছে।

এছাড়া মেলায় নারীদের জন্য সংরক্ষিত স্টল ২০টি, প্রিমিয়ার প্যাভিলিয়ন ৬০টি, প্রিমিয়ার মিনি প্যাভিলিয়ন ৩৮টি, সাধারণ প্যাভিলিয়ন ১৮, সাধারণ মিনি প্যাভিলিয়িন ২৯টি, প্রিমিয়ার স্টল ৬৭টি, রেস্টুরেন্ট ৩টি, সংরক্ষিত প্যাভিলিয়ন ৯টি, সংরক্ষিত মিনি প্যাভিলিয়ন ৬টি, বিদেশি প্যাভিলিয়ন ২৬টি, সংরক্ষিত মিনি প্যাভিলিয়ন ৯টি, বিদেশি প্রিমিয়াম স্টল ১৩টি, সাধারণ স্টল ২০১টি ও ফুড স্টল ২২টি।

এ পর্যন্ত ৫২১টি স্টল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। মেলায় ডিজিটাল এক্সপেরিয়েন্স সেন্টার, ইকোপার্কসহ নতুন অনেক কিছুই থাকছে। অব্যবস্থাপনা রোধে ভ্রাম্যমাণ আদালত ও ভোক্তা অধিদফতরের কর্মকর্তা সার্বক্ষণিক নজরদারি করবে। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত দর্শনার্থীদের জন্য মেলা খোলা থাকবে।